১৪ জুলাই ২০১২, রবিবার, ০৯:৪৭:১০ পূর্বাহ্ন


বৃহত্তর ঘুংগাদিয়া সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির বনভোজন
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৬-০৯-২০২৩
বৃহত্তর ঘুংগাদিয়া সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির বনভোজন বৃহত্তর ঘুংগাদিয়া সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতির বনভোজনের দৃশ্য


প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সামাজিক সংগঠন বৃহত্তর ঘুংগাদিয়া সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ইউএসএ’র প্রথম বার্ষিক বনভোজন গত ৩ সেপ্টেম্বর লংআইলেন্ডের বেলমন্ট পার্কে অনুষ্ঠিত হয়। প্রবাসে দিন রাত কায়িক  পরিশ্রমের ফাঁকে একটু ফুশরথের সুযোগ হলে সবাই ডানা মেলে মুক্ত বিহঙ্গের মত  উড়াল দিতে চায়। বিহঙ্গ না হলেও একটু দূরে  ছায়া শীতল স্থানে নির্ঝঞ্ঝাট ক্লান্তিহীন সময় কাটানোর সুযোগ পেলে কে তা হাত ছাড়া করে! বৃহত্তর ঘুংগাদিয়া সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন বনভোজনের আয়োজন করে  সে সুযোগ করে দেয়। সে আয়োজন বনভোজন থেকে মিলনমেলায় পরিণত হয়। আয়োজকদের আতিথেয়তা সবার নজর কাড়ে। সুশৃঙ্খল, পরিপাটি ব্যবস্থাপনা প্রশংসার দাবিদার। বনভোজনে অনেকের সঙ্গে দীর্ঘদিন পর সাক্ষাতের মোক্ষম সুযোগ ঘটে। বিশেষ করে এলাকার ঐতিহ্যবাহী পরিবার বিয়ানীবাজার কলেজের প্রথম অধ্যক্ষ এমদাদুর রহমানের ছোট ভাই মুড়িয়া  ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ৮১ বছর বয়সী আব্দুল জলিলের সঙ্গে। যদিও তিনি অসুস্থ। এছাড়া গ্রীষ্মের শেষ সপ্তাহ, স্কুল খোলার তিন দিন পূর্বে আয়োজন ছিল নারী-পুরুষ ও বাচ্চাদের কাছে লোভনীয়। সাংসারিক ও শৃঙ্খলিত সময় থেকে বের হয়ে মহিলারা ছুটে আসেন নীল আকাশের নিচে। একে অন্যের সঙ্গে চুটিয়ে আড্ডা দেন। পাখির কলতানের সঙ্গে বাচ্চাদের কোলাহলমুখর হয়ে ওঠে বনভোজনের স্থান। পুরুষদের আড্ডা, একে অপরের খোঁজখবর চলে হরদম। বিশেষ করে আসন্ন বিয়ানীবাজার সমিতির নির্বাচনে দুই সভাপতি প্রার্থী মিছবাহ আহমদ ও আব্দুল মান্নান ও দুই সেক্রেটারি প্রার্থী রেজাউল আলম অপু ও জহির উদ্দীন জুয়েল এবং মিছবাহ-অপু প্যানেলের সহ-সভাপতি প্রার্থী মুহিবুর রহমান রুহুলের নির্বাচনী প্রচারণা বনভোজনের স্থান জমে ওঠে। বনভোজনে পুরুষ, মহিলা ও বাচ্চাদের খেলার আয়োজন ছিল। খেলা শেষে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমিতির সভাপতি সামছুল হক। উপস্থাপন করেন সংগঠনের সেক্রেটারি আব্দুন নূর হারুন। পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মুড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, সাবেক ফুটবল খেলোয়াড় মাখন মিয়া, মোহাম্মদ সেবুল, আমিনুল ইসলাম চুন্নু, জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট বদরুল হোসেন খান, আব্দুশ শহিদ মাস্টার, গোলাপশাহ সমাজকল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জয়নাল হোসেন, বিয়ানীবাজার সমিতির  নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী মিছবাহ আহমদ ও আব্দুল মান্নান, সহ-সভাপতি প্রার্থী মুহিবুর রহমান রুহুল, সেক্রেটারি প্রার্থী রেজাউল আলম অপু ও জহির উদ্দীন জুয়েল, শামস উদ্দীন, আব্দুল হোসেন, আব্দুস সালাম, ফয়জুল হক, এমদাদুল হক, আব্দুশ শহিদ মাস্টার, আহমদ মাস্টার, আজমল হোসেনসহ সংগঠনের সব কার্যকরি কমিটির সদস্য।

বনভোজনের বিশেষ আকর্ষণ র‌্যাফেল ড্রতে প্রথম পুরস্কার নিউইয়র্ক-ঢাকা-নিউইয়র্ক এয়ার টিকেট, ২য় পুরস্কার সোনার চেইন, ৩য় পুরস্কার ল্যাপটপ, ৪র্থ পুরস্কার অ্যাপল ওয়াচ, ৫ম পুরস্কার অ্যাপল আই পেড, ৬ষ্ঠ পুরস্কার মাইক্রো ওভেন, ৭ম পুরস্কার অ্যাপল এয়ার প্যাড, ৮ম পুরস্কার ৫০ ডলার গিফট কার্ড, ৯ম পুরস্কার এয়ার ফ্রাইয়ার, ১০ পুরস্কার স্ট্যান্ড ফ্যান।

অনুষ্ঠান শেষে সমিতির সভাপতি সামছুল হক বনভোজনে উপস্থিত হয়ে বনভোজনকে সুন্দর ও আনন্দপূর্ণ করে তোলার জন্য সংগঠনের পক্ষ থেকে সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

শেয়ার করুন