০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, বৃহস্পতিবার, ০৩:৩৬:২২ অপরাহ্ন


এই যুগে নেতৃত্বের বিরল দৃষ্টান্ত : ড. আবু জাফর মাহমুদ
ম্যানহাটনে ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে খুতবা দিলেন প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৭-০৯-২০২৩
ম্যানহাটনে ইসলামিক কালচারাল সেন্টারে খুতবা দিলেন প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিমকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন ড. আবু জাফর মাহমুদ


জাতিসংঘের ৭৮তম অধিবেশনে যোগ দিতে নিউইয়র্কে সফররত  মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দাতো সেরি আনোয়ার ইব্রাহিম গত ২২ সেপ্টেম্বর ম্যানহাটনে ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব নিউইয়র্কে জুমার নামাজে খুতবা পাঠ করেছেন। 

মসজিদে উপস্থিত বিপুলসংখ্যক মুসল্লি তথা, গোটা সেন্টারের জন্য এটি ছিল একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। জুমার নামাজ শেষে নিউইয়র্কের মুসলিম কমিউনিটির পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিমকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান গ্লোবাল পিস অ্যাম্বাসেডর, বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের মাউন্টেন ব্যাটালিয়ান কমান্ডার স্যার ড. আবু জাফর মাহমুদ। সে সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্বখ্যাত কারি শেখ আহমেদ বিন ইউসুফ আল আজহারিসহ সেন্টারের খতিব, ইমাম ও অন্য আলেমবৃন্দ। আহমেদ বিন ইউসুফ আল আজহারি জুমার নামাজের আগে কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন। 

স্যার ড. আবু জাফর মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম তার অসাধারণ প্রজ্ঞা ও মৌলিক উপস্থাপনায় যেভাবে কোরআন খুতবা দিয়েছেন, তা এক ঐতিহাসিক দৃষ্টান্ত। আজকের দিনের একজন সরকারপ্রধান হিসেবে তিনি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এই সময় থেকে আমি তথা, আমার মতো অনেকেরই রোল মডেলে পরিণত হলেন তিনি। তিনি শেখ আহমেদ বিন ইউসুফ ইল আজহারির অসাধারণ তেলাওয়াতের প্রশংসা করে বলেন, বিশ্বখ্যাত কারির আজান ও কোরআন তেলাওয়াত এবং একটি দেশের সরকারপ্রধানের খুতবা ও বয়ানে অংশ নিতে পারা সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার। নিউইয়র্কের মুসলিম কমিউনিটিতে দিনটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিম ওই সেন্টারের জন্য বৃহদাকার ও দৃষ্টিনন্দন একটি কোরআন শরিফ প্রদান করেন। এছাড়াও ওই ইসলামিক সেন্টারের জন্য তিনি ১ লাখ কোরআন শরিফ প্রদানের ঘোষণা দেন। অসাধারণ বর্ণিল ও শিল্পমাণে বিস্ময়কর কোরআন শরিফটি প্রদানের সময় ছিলেন গ্লোবাল পিস অ্যাম্বাসেডর, বীর মুক্তিযোদ্ধা স্যার ড. আবু জাফর মাহমুদ, আইটিভির স্বত্বাধিকারী ড. শহীদুল্লাহ ও ইসলামিক সেন্টারের ইমাম শেখ সাদ জালো। 

ওই ঐতিহাসিক মুহূর্তে মাইকেল এঞ্জেলো নামের এক ইহুদি তরুণ প্রধানমন্ত্রী আনোয়ার ইব্রাহিমের মাধ্যমে কালিমা শাহাদত পাঠ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। নিউইয়র্কের মুসলিম কমিউনিটির পক্ষে স্যার ড. আবু জাফর মাহমুদ বলেন, ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী তরুণ এখন থেকে আমাদের ভাই। তার পাশে সব সময়ের জন্য আমরা আছি।

ম্যানহাটনে ইসলামিক কালচারাল সেন্টার অব নিউইয়র্কের ওই সামগ্রিক আয়োজনটি সমন্বয় করেন আইটিভির স্বত্বাধিকারী ইমাম ড. মো. শহীদুল্লাহ।

শেয়ার করুন