১৪ জুলাই ২০১২, রবিবার, ১০:২৮:৩২ পূর্বাহ্ন


ফরিদপুরে আজ বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ
নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট করা হয়েছে : ১২-১১-২০২২
ফরিদপুরে আজ বিএনপির বিভাগীয় মহাসমাবেশ


চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম রংপুর বরিশাল খুলনার মতই মানুষের ঢল নামতে শুরু করেছে ফরিদপুরের কোমরপুর আব্দুল আজিজ ইনষ্টিটিউশন মাঠে তথা বিএনপির ফরিদপুর বিভাগীয় মহাসমাবেশস্থল। ফরিদপুর শহর কেন্দ্রে সমাবেশ করতে চাইলেও এটাতে বাধা দেয় পুলিশ প্রশাসন। তারা সমাবেশস্থল ঠিক করে দেয় শহর থেকে অন্তত ৬ কিলোমিটার দুরে ওই স্থানে। ফরিদপুরেও ৩৮ ঘণ্টার যানবাহন ধর্মঘট চলছে।


এটা উপেক্ষা করে মানুষ বিভাগের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নিজস্ব উদ্যোগে সমাবেশ স্থলে, কউ তিন, কেউ দুই দিন আগ থেকে হাজির হয়েছেন অনন্য সমাবেশস্থলের মতই। এরা রাতে এসে ঘুমিয়েছেন সমাবেশের মাঠে। বড় বড় ড্যাগে খাবার পাক করে খেয়েছেন।  অনেকে নিজস্ব উদ্যোগ থেকে খাবার এনে বিতরণ করেছেন, পানি বিতরণ করেছেন- এজন্য উৎসবমুখর পরিবেশ ফরিদপুর সমাবেশ স্থল।

 গতকালই কানায় কানায় ভরে গিয়েছিল সমাবেশের মাঠ, আশপাশের রাস্তাঘাট বাড়িঘর। দিনে হয়তো বাধা বিপত্তি ঘটতে পারে- এজন্য অনেকেই আগ থেকেই রাতের আঁধারে বিভিন্ন উপায়ে এতে চলে এসেছেন। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সমাবেশস্থলে পৌঁছেছেন আগের দিন সন্ধ্যায়। এবং সরাসরি মঞ্চে আরোহন করে উপস্থিত নেতাকর্মী ও সমর্থকদের উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে অভিবাদন জানিয়েছেন। 

বিএনপির নেতাকর্মীরা জানাচ্ছেন তারা নিজেরাই চিড়া-মুড়ি সহ শুকনা খাবার নিয়ে সমাবেশস্থলে চলে এসেছেন। কেউ এনেছেন চাদর বিছানা। এগুলো দিয়ে বিভিন্ন উপায়ে তারা রাত্রি যাপন করেছেন। 


এটাকে তারা উৎসবমুখর সমাবেশ হিসেবে নিয়েছেন। কারন একে অপরের সাথে পরিচয় হচ্ছে, দেখা হচ্ছে। একে অপরের ছুটে আসা আনন্দ উৎসবের মতো করে নিয়েছেন। আসলে দীর্ঘদিন আন্দোলন না থাকা বিএনপি ক্ষমতায় না থাকার কারণে বা ক্ষমতাসীন দলের বিভিন্ন চোখরাঙানির কারণে তারা মাঠে নামেনি। ছিলেন অনেকটাই ঘরমুখো। এবারের বিভাগীয় সম্মেলন এ উপলক্ষে তারা ঘর থেকে বের হতে পেরে আনন্দ বোধ করছেন। এই উপলক্ষে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের দিকে তারা জানান দিতে চাচ্ছেন- যে শত বাধার বিভিন্ন প্রতিকূলতার মাঝেও তারা হারিয়ে যাননি। 


গতরাতের সমাবেশ স্থল/ছবি সংগৃহীত 



এদিকে সমাবেশস্থলে তারা চুপচাপ বসে রয়েছেন তা নয়। দিয়েছেন মুহুর্মুহু স্লোগান। খন্ড খন্ড বক্তৃতা। আবার কেউ কেউ ঢাক ঢোল বাজনা নিয়ে উপস্থিত হয়েছেন, সেগুলি বাজিয়েছেন। এছাড়া চারপাশে ব্যানার-ফেস্টুন বিভিন্ন স্লোগানসমৃদ্ধ একাকার হয়ে যায় সমাবেশ স্থল। 

দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, দ্রব্যমুল্যের উর্দ্ধগতি,জ্বালানি সঙ্কট ও মুল্যবৃদ্ধি সহ চলমান দেশে নানা সমস্যার প্রতিবাদেই বিএনপির এ সম্মেলন। আজ সকাল ১১টায় শুরু হয়ে যাবে সম্মেলন। এ ধারাতে পরিবর্তন এসেছে বরিশালে। দুপুর ২টা থেকে সভা শুরুর কথা থাকলেও মাঠ কানায় কানায় ভরে গেলে ১১ টা থেকে শুরু হয়। সে ধারা এবার ফরিদপুরেও। 


শেয়ার করুন