১৪ জুন ২০১২, শুক্রবার, ০৭:০৮:০১ অপরাহ্ন


ঊনবাঙাল সভা যেন লেখকদের মিলনমেলা
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৫-০৫-২০২৩
ঊনবাঙাল সভা যেন লেখকদের মিলনমেলা ঊনবাঙাল সভায় কবিদের উপস্থিতি


দীর্ঘ বিরতির পর গত ২০ মে নিউইয়র্কের এস্টোরিয়ার জালালাবাদ ভবনে অনুষ্ঠিত হলো ঊনবাঙালের ৩৬তম সাহিত্যসভা। ভার্জিনিয়া থেকে আগত লেখক আনোয়ারুল ইকবাল, শেফালি বেগম, ফ্লোরিডা থেকে আগত কবি ড. উপালি শ্রমণ এবং ঢাকা থেকে আগত কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক ও মেরিনা হকের যোগদান ছিল বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। নিউইয়র্কের ১৭ জন কবি/লেখক তাদের লেখা পড়েছেন, তারা হলেন- স্বরচিত লেখা পাঠ ড. উপালি শ্রমণ, ধুপ শিখা, এইচ বি রিতা, সুলতানা ফেরদৌসী, মিয়া এম আসকির, দিমা নেফারতিতি, এস এম মোজাম্মেল হক, মনিজা রহমান, রেণু রোজা, ইমাম চৌধুরী, রূপা খানম, রাজিনা চৌধুরী, আফরোজা সীমু, শরিফুজ্জামান পল, সুমন শামসুদ্দিন, সোহানা নাজনীন এবং মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম। 

অনুষ্ঠানে রবীন্দ্রনাথের ও কাজী জহিরুল ইসলামের কবিতা আবৃত্তি করেন নাসিমা সুলতানা, দিমা নেফারতিতি রবীন্দ্রনাথ ও শ্রী চিন্ময়ের সমন্বয়ে একটি আলেখ্য উপস্থাপন করেন। অনুষ্ঠানের মূল উদ্যোক্তা পরিবেশপ্রেমী সৈয়দ ফজলুর রহমান সবাইকে স্বাগত জানিয়ে অনুষ্ঠান শুরু করেন। এর পরে ‘রবীন্দ্রসাহিত্যের প্রাসঙ্গিকতা’ নিয়ে মিডিয়া ব্যক্তিত্ব দিমা নেফারতিতির সঞ্চালনায় প্রাণবন্ত আলাপচারিতা শুরু হয়। আলাপচারিতায় অংশগ্রহণ করেন কথাসাহিত্যিক আনিসুল হক, কবি কাজী জহিরুল ইসলাম, লেখক আব্দুল্লাহ জাহিদ, প্রথম আলো উত্তর আমেরিকার সম্পাদক ইব্রাহীম চৌধুরী খোকন এবং লেখক আনোয়ারুল ইকবাল। পঠিত স্বরচিত লেখাগুলোর ওপর গঠনমূলক এবং অনুপুঙ্খ আলোচনা করেন কাজী জহিরুল ইসলাম। 

ঊনবাঙাল সভায় যোগ দেওয়ার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে সোহানা নাজনীন, এইচ বি রীতা, দিমা নেফারতিতি, সৈয়দ ফজলুর রহমান, সীমু আফরোজ, উপালি শ্রমণ, ইমাম চৌধুরী প্রমুখ বলেন, এই সভায় যোগ দিতে পেরে তারা তৃপ্ত এবং আনন্দিত। বৃষ্টি বিঘ্নিত সন্ধ্যায় অর্ধশত লেখক/কবি এবং সাহিত্যামোদী মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। ঊনবাঙালের সভাপতি মুক্তি জহির বলেন, ঊনবাঙাল আমাদের সবার সংগঠন, এটি একটি উন্মুক্ত মঞ্চ। এখন থেকে প্রতি মাসে একবার আমরা এখানেই মিলিত হবো, নিজেদের লেখা পড়বো এবং মন দিয়ে সমালোচনা শুনবো, যাতে আমরা আমাদের লেখার মানোন্নয়ন ঘটাতে পারি। সৈয়দ ফজলুর রহমান বলেন, আমার অনেক ভবিষ্যদ্বাণী ফলেছে, আজ আরো একটি ভবিষ্যদ্বাণী করি, বাংলা ভাষার রাজধানী হলো ঢাকা, খুব শিগগিরই আপনারা দেখবেন কবি কাজী জহিরুল ইসলামকে ঘিরে বাংলা সাহিত্যের রাজধানী হয়ে উঠবে নিউইয়র্ক।

শেয়ার করুন