২২ জুন ২০১২, শনিবার, ০৪:১৩:০৮ অপরাহ্ন


নিজেদের সংস্কৃতির জানান দিল কানাডায় প্রবাসীরা
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৫-০৫-২০২৪
নিজেদের সংস্কৃতির জানান দিল কানাডায় প্রবাসীরা


নিজ নিজ ভাষায় কবিতা, গান ও নৃত্য পরিবেশন করে তুলে ধরলো কানাডায় বাস করা করা অন্যদেশের মানুষেরা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের মাঝে মিষ্টি পরিবেশন ও প্রত্যেকের দেশী খাবারে আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়।

২৬শে এপ্রিল শুক্রবার এমন আয়োজন করা হয় কানাডার অন্টারিও প্রদেশে কুইন্স বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাঙ্গনে। সেখানে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী ছাত্রছাত্রীবৃন্দ কর্তৃক আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও নববর্ষ উদযাপন করা হয়। এতে অধ্যয়ন ও গবেষণার পাশাপাশি নিজস্ব ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরার এ প্রয়াসে আলোচনা ছাড়াও বাংলা গান ও কবিতা উপস্থাপন করা হয়। ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরেন নাফিজ সাদমান। আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে নৃতাত্ত্বিক জাতিগোষ্ঠীর নিজ নিজ ভাষা ও সংস্কৃতির মেলবন্ধনে সকলের অন্তর্ভুক্তি ও বিকাশের উপর আলোকপাত করেন কুইন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েট স্টাডিজ ও পোস্ট ডক্টরাল বিষয়ক ডীন প্রফেসর ডঃ ফাহিম কাদির।

প্রধান অতিথি হিসাবে আসন অলংকৃত করেন প্রাদেশিক আইন সভার সদস্য ডঃ টেড সু। বিশেষ অতিথি ছিলেন কুইন্স আন্তর্জাতিক কেন্দ্রের পরিচালক মিঃ সুলতান আল মাজিল। অনুষ্ঠানে কানাডা সহ নাইজেরিয়া, চীন, ঘানা, ভারত  ও ইরানের ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ নিজ নিজ ভাষায় কবিতা, গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন। অন্টারিও আদিবাসীর পক্ষ থেকে ঐতিহ্যবাহী নৃত্য পরিবেশন ছিল উল্লেখযোগ্য। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন সুমাইয়া আফরিন বহ্নি এবং মীর মেহেদী আল হাম্মাদি।

অনুষ্ঠানটিতে সকলের স্বতঃস্ফূর্ত অংশ গ্রহণের জন্য ছাত্র-ছাত্রিসহ কম্ম্যুনিটির সকলের প্রতি এবং সর্বোপরি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সহায়তার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সমাপনি বক্তব্য রাখেন সুমাইয়া চৌধুরী। অনুষ্ঠান শেষে অতিথিদের মাঝে মিষ্টি পরিবেশন ও দেশী খাবারে আপ্যায়ন করা হয়।

শেয়ার করুন