২২ জুন ২০১২, শনিবার, ০৪:২৯:২২ অপরাহ্ন


পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ড. হাছান মাহমুদের সাথে চবি এলামনাই’র মতবিনিময়
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৫-০৬-২০২৪
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ড. হাছান মাহমুদের সাথে চবি এলামনাই’র মতবিনিময় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে চবি এলামনাই নেতৃবৃন্দ


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন আমেরিকা ইনক-এর নবনির্বাচিত কার্যকরি কমিটি গত মে ৩০ সন্ধ্যায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এলামনাই ড. হাছান মাহমুদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

নিউ ইর্য়কের ম্যানহাটনের মিলেনিয়াম হোটেলে এই বিশেষ সাক্ষাতে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান, প্রাক্তন সভাপতি ও উপদেষ্টা আবদুল আজিজ নঈমী, উপদেষ্টা কামাল হোসেন মিঠু, সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মোহাম্মদ মুহিত, সভাপতি সাবিনা শারমিন নিহার, সাধারণ সম্পাদক মীর কাদের রাসেল, অর্থ সম্পাদক মাকসুদা খানম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অনুপ দাশ, সহ-সাধারণ সম্পাদক ফারহানা আক্তার এবং রুদ্রনীল দাশ রুপাই।

ড. হাছান মাহমুদ এলামনাই এসোসিয়েশনের উদ্যোগের প্রশংসা করেন এবং তাদের সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। তিনি বলেন, এলামনাইদের এমন সংগঠন সমাজ ও দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং এটি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি উদাহরণ হিসেবে কাজ করবে। এই সাক্ষাতের মাধ্যমে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েশন আমেরিকা ইনক তাদের কার্যক্রমকে আরও গতিশীল করতে পারবে এবং প্রবাসী এলামনাইদের মধ্যে সংযোগ স্থাপন ও সম্পর্ক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশা করা হচ্ছে। নবনির্বাচিত কমিটি তাদের কার্যক্রম শুরু করতে উদ্দীপ্ত এবং ভবিষ্যতে এলামনাইদের কল্যাণে আরও নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করবে বলে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।

আলোচনায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই আমেরিকার পক্ষ থেকে নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা তাদের ভবিষ্যৎ কার্যক্রম এবং বিভিন্ন উদ্যোগ সম্পর্কে ড. হাছান মাহমুদকে অবহিত করেন। তারা এসোসিয়েশনের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড, সদস্যদের কল্যাণ এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এলামনাই এসোসিয়েশনের প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে প্রবাসী এলামনাইদের মধ্যে সংযোগ স্থাপন, সম্পর্ক উন্নয়ন এবং তাদের কল্যাণে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা। এই ধরনের সৌজন্য সাক্ষাত এবং আলোচনার মাধ্যমে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা একে অপরের সাথে আরও সুদৃঢ় সম্পর্ক স্থাপন করতে সক্ষম হবে এবং প্রবাসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে সাহায্য করবে।

শেয়ার করুন