২২ জুন ২০১২, শনিবার, ০৪:৪২:৫৫ অপরাহ্ন


ক্যালিফোর্নিয়ায় অভিবাসীদের গ্রেফতার বন্ধে কোর্টের নির্দেশ
দেশ রিপোর্ট
  • আপডেট করা হয়েছে : ২২-০৫-২০২৪
ক্যালিফোর্নিয়ায় অভিবাসীদের গ্রেফতার বন্ধে কোর্টের নির্দেশ ইউএস ইমিগ্রেশন এবং কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট এজেন্টরা একজন অভিবাসীকে গ্রেফতার করে হেফাজতে নেয়


ইউএস ডিস্ট্রিক্ট জজ অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া ওটিস ডি. রাইট গত ১৫ মে বুধবার নির্দেশ দিয়েছে সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ায় ইউএস ইমিগ্রেশন অ্যান্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট গ্রেফতারি পরোয়ানা ছাড়া অভিবাসীদের গ্রেফতার না করার নির্দেশ দিয়েছে। মাননীয় আদালত অভিসাবীদের তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করার কৌশলটি অসাংবিধানিক। আদেশটি শুধু ইউএস ইমিগ্রেশন এবং কাস্টমস এনফোর্সমেন্টের লস অ্যাঞ্জেলেস ফিল্ড অফিসের জন্য প্রযোজ্য। যার মধ্যে লস অ্যাঞ্জেলেস, অরেঞ্জ, সান বার্নার্ডিনো, রিভারসাইড, ভেনচুরা, সান্তা বারবারা এবং সান লুইস ও বিস্পোর কাউন্টি অন্তর্ভুক্ত। মানবাধিকার কর্মীরা বলেছেন, আইসিইয়ের ‘নক অ্যান্ড টক’ পদ্ধতিটি ২০২২ সালে অন্তত ৮ শতাংশ গ্রেফতারের জন্য দায়ী।

ইউএস ডিস্ট্রিক্ট জজ ওটিস ডি. রাইট আইসিইয়ের যুক্তি প্রত্যাখ্যান করে আদেশে বলেন, আইসিইয়ের এজেন্টরা বাড়ির আশপাশের ব্যক্তিগত এলাকায় প্রবেশ করতে বা দরজায় নক করতে পারবে না। অনেকে ক্ষেত্রেই দেখা যায়, ইমিগ্রেশন এজেন্টরা অনুমতি ছাড়াই বাসিন্দাদের বাড়িতে চলে যায় এবং যখন ব্যক্তি দরজা খোলে, তখন এজেন্টরা সাধারণত বলে যে তারা তদন্ত পরিচালনা করছে। আদেশে আদালত তালিকাভুক্ত চারটি উদাহরণ তুলে ধরে রায়ে বলেন, অভিবাসীদের গ্রেফতারের জন্য ২০১৭ থাকে ২০২০ এজেন্টরা একজন ব্যক্তির বাড়ির আশপাশে সাংবিধানিকভাবে সুরক্ষিত এলাকায় যেমন তাদের বারান্দা বা বাড়ির পেছনের দিকে প্রবেশ করে। এজেন্টদের সেই এলাকায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে যদি তাদের লক্ষ্য শুধু প্রশ্ন জিজ্ঞাসাবাদ হয়। জজ রাইট রায়ে লিখেছেন ‘নক এবং টক’-এর পরিবর্তে আরো সঠিক শিরোনাম, হবে ‘নক অ্যান্ড অ্যারেস্ট'।’

আদালতে মানবাধিকার কর্মীরা অভিযোগ করেন, এজেন্টরা নিয়মিতভাবে নিজেদেরকে পুলিশ হিসাবে ভুলভাবে উপস্থাপন করে যাতে তারা গ্রেফতার করতে পারে। ইনল্যান্ড কোয়ালিশন ফর ইমিগ্র্যান্ট জাস্টিসের অন্তর্বর্তী পরিচালক লিজবেথ অ্যাবেলন, গত ১৬ মে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, অভিবাসীদের জন্য তাদের নিজেদের বাড়িতে নিরাপদ বোধ করা এবং ভয় ছাড়াই বসবাস করা একটি মৌলিক মানবাধিকার। এটি ইমিগ্রেশন এবং কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট দ্বারা ক্ষতির সম্মুখীন। এই রায় ন্যায়বিচারের ক্ষেত্রে একটি ভালো প্রথম পদক্ষেপ।

লস অ্যাঞ্জেলেসের দুটি স্থানীয় অ্যাডভোকেসি সংস্থা ইনল্যান্ড কোয়ালিশন ফর ইমিগ্র্যান্ট জাস্টিস এবং কোয়ালিশন ফর হিউম্যান ইমিগ্র্যান্ট রাইটস, একজন অভিবাসী, ওসনি সোর্টো-ভাসকুয়েজ কিডের পক্ষে ২০২০ সালে দায়ের একটি ক্লাস-অ্যাকশন মামলা করেন। গত ১৫ মে আদালত ক্লাস-অ্যাকশন মামলার এই রায় দেন । মামলায় আমেরিকান সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়া, ইউসি আরভাইন স্কুল অব ল ইমিগ্র্যান্ট রাইটস ক্লিনিক এবং ল ফার্ম মুঙ্গের, টোলেস অ্যান্ড ওলসন বাদীদের প্রতিনিধিত্ব করেন।

শেয়ার করুন